পবিত্র কোরআনের অনুবাদের ভুল সংশোধনের নির্দেশনা

দেশের বিভিন্ন প্রকাশনা সংস্থা থেকে মুদ্রিত পবিত্র কোরআনুল কারীমে ইবারত ও অনুবাদে ভুল-ত্রুটি যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। যদি ভুল-ত্রুটি থাকে তা চিহ্নিত করে বাংলাদেশের হাক্কানি আলেম-ওলামার সামনে উপস্থাপন এবং তাদের সম্মিলিত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে সেসব ভুল-ত্রুটি পরিমার্জন করা হবে। এমনটা জানিয়েছেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল।

আজ সোমবার বিকেলে ইসলামি ফাউন্ডেশনের আগারগাঁওয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তৃতায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন বাজারে প্রচলিত বিভিন্ন প্রকাশনা সংস্থার প্রকাশিত পবিত্র কোরআনের অনুবাদে কিছু ভুল রয়েছে। তিনি আরোও বলেন, এসব ভুল সংশোধনের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন।’

সামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, বাজার থেকে ‘আমরা প্রায় সত্তর কপি কোরআন শরীফ সংগ্রহ করেছি। এর মধ্যে ইচ্ছাকৃত কিংবা অনিচ্ছাকৃত ভুল রয়েছে। মাওলানা আশরাফ আলী থানভী (রহ.) কর্তৃক অনূদিত কোরআন শরীফ প্রায় ২৫টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ছাপিয়েছে। মূল থেকে বাংলায় অনুবাদ করতে গিয়ে কিছু ভুল হতে পারে।’

সভায় ইফা’র সচিব কাজী নুরুল ইসলাম, পরিচালক মো. আবদুল হাই ভূঁইয়া, মুহাম্মদ আবদুস সালাম, বোরহান উদ্দীন মো. আবু আহসান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুহাম্মদ রুহুল আমীন, সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, বসুন্ধরা ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের পরিচালক মুফতী রফিকুল ইসলাম আল মাদানী, আলেম আবদুল্লাহ বিন সাঈদ জালালাবাদী, মদীনাতুল উলম কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মো. আবদুর রাজ্জাক, উত্তর বাড্ডা কামিল মাদ্রাসার মুফতী মো. বদিউল আলম সরকার, কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া কামিল মাদ্রাসার প্রধান ফকীহ মুফতি মাহমুদুল হাসান, জামিয়া আরবিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ ওয়াহিদুয্যামান ও আহছানিয়া ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক শাইখ মুহাম্মদ উছমান গণী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.